ফায়ার সার্ভিস ও ওটি বয়ের সাহসিকতায় প্রাণে বেঁচে ফিরলো মানসিক রোগী

মোঃ ফজলুল হক পাভেল, বিশেষ প্রতিবেদক  আজকের ডাক | প্রকাশিত: মঙ্গলবার, মার্চ ১২, ২০১৯ ৩:৩৭ অপরাহ্ণ  

ময়মনসিংহের চরপাড়ায় মেমোরিয়াল ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ছাদের কার্ণিশ থেকে আজ বিকেল ৪.৪৪ ঘটিকায় বিপদাপন্ন অবস্থায় থাকা এক মানসিক রোগীকে উদ্ধার করেছে ক্লিনিকটির অপারেশন রুমে সেবার দায়িত্বে থাকা এক সেবাকর্মী ও ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের তিন কর্মী।

সাহসী এই উদ্ধার অভিযানে প্রাণে বেঁচে যায় সাগর(১৮) নামের এই মানসিক রোগী।জানা গেছে বিকেল তিনটার দিকে পাঁচতলা ভবনটির দু তলায় মেমোরিয়াল ডায়াগনোস্টিক সেন্টারে মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ড. মোঃ এনামুল হক খানের কাছে চিকিৎসার জন্য তাকে নিয়ে আসে তার পরিবার।কিন্তু তার পরিবারের সদস্যদের অমনোযোগী থাকার কারনে সে দৌঁড়ে পালিয়ে ছাদের উপর উঠে যায়।ছাদে কোন নিরাপত্তা প্রাচীর না থাকার এবং মানসিক বৈকল্যের কারনে ভবনটির পাইপ বেয়ে নিচে নামতে থাকে।কিন্তু নিচ পর্যন্ত পাইপ না থাকায় ভবনটির চতুর্থ তলায় এসে নামার কোন উপায় না পেয়ে এক ঘন্টা পাইপ ধরেই উবু হয়ে বসে থাকে চতুর্থতলার দেয়ালের বাইরের অংশের ছাদে।

প্রায় পৌনে দুই ঘন্টা পর নানা সতর্কতা ও চেষ্টায় ডায়াগনস্টিক সেন্টারটির সেবাকর্মী জসিম বিপদের কবলে থাকা মানসিক রোগী সাগরকে বারান্দার গ্রিলের ভেতর থেকে আঁকড়ে ধরে থাকে।
ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে তারপর গ্রিল কেটে উদ্ধার করে বিপদাপন্ন সাগরকে।

উদ্ধারের পর সাগরকে দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে পাঠায় ফায়ার সার্ভিস।
তবে এ ব্যাপারে ডায়াগনোস্টিক সেন্টারটিতে কর্তব্যরত মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ড. মোঃ এনামুল হক খানের সাথে যোগাযোগ করতে গেলে তাকে চেম্বারে পাওয়া যায়নি।

 

-এডি/এইচএ

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ