হামলাকারী হাসছিলেন আদালতে

 আজকের ডাক | প্রকাশিত: শনিবার, মার্চ ১৬, ২০১৯ ৪:৪৪ পূর্বাহ্ণ  

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলাকারী ব্রেনটন হ্যারিসন টারান্টকে হাতকড়া পরিয়ে খালি পায়ে আদালতে হাজির করা হয়েছে। আজ শনিবার স্থানীয় সময় সকালে অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ২৮ বছর বয়সী এই যুবককে ক্রাইস্টচার্চ ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে হাজির করা হয়। এ সময় হাসছিলেন তিনি।

শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে স্থানীয় সময় বেলা দেড়টার দিকে জুমার নামাজ আদায়রত মুসল্লিদের ওপর স্বয়ংক্রিয় রাইফেল নিয়ে হামলা চালান ব্রেনটন। অল্পের জন্য ওই হামলা থেকে বেঁচে যান বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। কাছাকাছি লিনউড মসজিদে দ্বিতীয় দফায় হামলা চালানো হয়। দুই মসজিদে হামলায় নিহত ৪৯ জন। এর মধ্যে আল নুর মসজিদে ৪১ জন ও লিনউড মসজিদে সাতজন নিহত হন। একজন হাসপাতালে মারা যান। আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ৪০ জন। এর মধ্যে পাঁচ বছর বয়সী এক শিশুর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আজ নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের অনলাইন সংস্করণে বলা হয়, ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলায় অভিযুক্ত করা হয়েছেন ব্রেনটনকে। তিনি নিউজিল্যান্ডের ডুনেডিনের অ্যান্ডারসনস বে এলাকার বাসিন্দা। আদালতে যখন ব্রেনটনকে হাজির করা হয়, তখন তাঁর পরনে ছিল বন্দীদের সাদা পোশাক, হাতে হাতকড়া এবং খালি পা। ডকে তাঁর ছবি তোলার সময় তিনি আলোকচিত্রীদের দিকে তাকিয়ে হাসছিলেন। তাঁর পাশেই ছিলেন দুই পুলিশ সদস্য।

৫ এপ্রিল পর্যন্ত তাঁর রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আদালতে দায়িত্বরত আইনজীবী রিচার্ড পিটারস জানান, এর মধ্যে তাঁর জামিনের কোনো আবেদন হচ্ছে না। তাঁর নাম গোপন রাখারও কোনো আবেদন ছিল না।

তবে বিচারক পল কেলার হামলাকারী ব্রেনটনের ছবি তোলা ও ফুটেজ নেওয়ার অনুমতি দিলেও তিনি বিচার–সম্পর্কিত অধিকার বজায় রাখতে ব্রেনটনের ছবি প্রকাশের সময় মুখ ঝাপসা করে দেওয়ার নির্দেশ দেন।

অভিযোগে ব্রেনটনের কোনো পেশার কথা উল্লেখ করা হয়নি। আদালত কক্ষে সাধারণ লোকজনকে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।

নিউজিল্যান্ডের তিনটি গণমাধ্যম শুধু আদালত কক্ষের ভেতরে ছবি তোলা ও ফুটেজ নেওয়ার অনুমতি পায়। সাংবাদিকদের নিরাপত্তারক্ষীরা ঘিরে রেখে ভেতরে নিয়ে যায়।

শুনানি শুরু হওয়ার আগে বিচারক গণমাধ্যমকে কিছু নির্দেশনা দেন। আদালতকক্ষের বাইরে বিপুলসংখ্যক গণমাধ্যম কর্মী উপস্থিত ছিলেন। এর মধ্যে বেশ কিছু আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ছিল। শুধু অনুমতি পাওয়া গণমাধ্যমই আদালতকক্ষে প্রবেশ করতে পেরেছে। আদালত প্রাঙ্গণ ঘিরে ছিল সশস্ত্র পুলিশ।

অভিযুক্ত হামলাকারী ব্রেনটনের ওপরের ঠোঁট কাটা ছিল। শুনানি চলাকালে পুরোটা সময় তিনি নিশ্চুপ ছিলেন। তিনি জনসাধারণের গ্যালারিতে উপস্থিত গণমাধ্যমের দিকে তাকিয়ে ছিলেন।

 

-এডি/এইচএ

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ

%d bloggers like this: