ঝিনাইদহ প্রশাসন প্রস্তুত ফণী মোকাবেলায়

আতিক টুটুল,ঝিনাইদহ  আজকের ডাক | প্রকাশিত: শনিবার, মে ৪, ২০১৯ ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ  

ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র প্রভাবে যেকোনো ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় প্রস্তুতি নিয়েছে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসন। জেলায় বৃষ্টি শুরু হয়েছে। আকাশ মেঘে আচ্ছন্ন।

ইতিমধ্যে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসন কয়েক দফায় বৈঠক করেছে। বৈঠকে জেলার ছয় উপজেলা প্রশাসনকে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। জেলার সব সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। তাদের পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত কর্মস্থল ত্যাগ করতে নিষেধ করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক সরোজকুমার নাথের কার্যালয়ে সবশেষ অনুষ্ঠিত জরুরি বৈঠকে এসব নির্দেশনা দেওয়া হয়। প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে জেলার সব স্কুল-কলেজের স্কাউট ও সরকারি-বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনকে।

এদিকে, সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় মহড়া দিয়েছে জেলার সব ফায়ার সার্ভিস ইউনিট। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ফণী শুক্রবার সকালে ভারতের পুরী উপকূলের কাছে আঘাত হেনেছে।

ঘূর্ণিঝড়টির সম্ভাব্য গতিপথের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশের ঝিনাইদহের মহেশপুর ও কোটচাঁদপুর উপজেলা।ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক সরোজকুমার নাথ জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে সতর্ক বার্তা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে জেলার কোটচাঁদপুরসহ সব উপজেলায়।

সেখানকার জনপ্রতিনিধিদের বিশেষ করে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের বিষয়টি অবগত করা হয়েছে।ঝিনাইদহ অঞ্চল যেহেতু উপূলীয় এলাকা নয়, তাই এখানে কোনো আশ্রয়কেন্দ্র নেই। জলোচ্ছ্বাস হওয়ার আশঙ্কাও নেই।

তবে ঝড়ের সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। প্রতিটি উপজেলায় কন্ট্রেল রুম খোলা হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

 

 

 

 

-এডি/ এএ

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ