নড়াইলে অবৈধ বালু উত্তোলনের সময় ২টি ড্রেজার মেশিন পুড়িয়ে ধ্বংস! এলাকবাসির স্বস্তি প্রকাশ

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল  আজকের ডাক | প্রকাশিত: শুক্রবার, মে ১৭, ২০১৯ ১১:০০ পূর্বাহ্ণ  

নড়াইল ও বাগেরহাট জেলার সীমান্তবর্তী সদ্য খননকৃত আঠারোবাকি নদীতে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের সময় এসি ল্যান্ড অভিযান চালিয়ে দুইটি ড্রেজার মেশিন পুড়িয়ে দিয়েছে ।

অভিযান কালে আরও চারটি ড্রেজার মেশিন আটক করা হলেও মালিককে সে গুলো সরিয়ে নিতে দুই দিনের সময় বেধে দিয়েছেন তিনি। ওই অভিযানে বালু উত্তোলনের হাত থেকে রক্ষা পেল আঠারোবাকি নদী। অপরদিকে এলাকবাসিরা স্বস্তি প্রকাশ করেছেন।

জানা যায়, দুই জেলার সীমান্তে অবস্থিত নড়াইলের কালিয়া ও বাগেরহাটের মোল্লারহাট উপজেলার মধ্যবর্তী স্থান দিয়ে বয়ে চলা এককালের খরস্রোত আঠারোবাকি নদীটি নব্যতা হারিয়ে ফেলায় পানিউন্নয়ন বিভাগ গত বছর নদীটি খনন করে।

সেই সুযোগে স্থানীয় একদল প্রভাবশালী বেশ কয়েকদিন যাবত ওই নদীর বল্লাহাটি নামক স্থানে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিল। ঘটনাটি এলাকার সচেতন নাগরিকরা নড়াইলের জেলা প্রশাসককে অবহিত করলে ওইদিন দুপুর ২ টার দিকে নড়াইলের কালিয়ার এসি ল্যান্ড মো. নাযিবুল আলম আঠারোবাকি নদীতে বালু উত্তোলনকারীদের হাত থেকে রক্ষা করতে অভিযান চালিয়ে ৬টি ড্রেজার মেশিন আটকের পর ২টি ড্রেজার পুড়ি দিয়েছেন।

বাকি ৪টি ড্রেজার ২ দিনের মধ্যে সরিয়ে নেয়ার জন্য মালিকদের নির্দেশ দিয়েছেন। এর আগে বুধবার বিকালে ওই নদীর মোল্লার হাট অংশের চুনখোলা নামক স্থানে মোল্লারহাট উপজেলা প্রশাসন একটি ড্রেজার মেশিন ধ্বংশ করেছে বলেও জানা গেছে।

নড়াইলের কালিয়ার ইউএনও মো. নাজমুল হুদা ওইসব অভিযানের সত্যতা স্বীকার করে, নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়কে জানান, ‘সদ্য খননকৃত আঠারোবাকি নদীকে বালু উত্তোলনকারীদের হাত থেকে রক্ষার জন্য ওই অভিযান পরিচালিত হয়েছে। ভবিষ্যতেও অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

-এডি/ এএ

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ