সমাজসেবা কর্মকর্তার তালবাহানায় ঈদের আনন্দ ভেস্তেগেলো মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের

ভোলা অফিস  আজকের ডাক | প্রকাশিত: সোমবার, জুন ৩, ২০১৯ ৫:৪৫ অপরাহ্ণ  

এবার ঈদুল ফিতরের আনন্দ করা হলো না মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তানদের। ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার বড় মানিকা ইউনিয়নের শাফিজল হক ডালীর ছোলে শামসুদ্দিন ১৯৭১ সালে পাক হানাদর বাহিনীর হাতে নির্মম ভাবে শহীদ হন।

শামসুদ্দিন শহিদ হওয়ার সময় তার ঘরে দুই মেয়ে এক ছেলে রয়েছে এবং তার মৃত্যুর কয়ক বছর পর স্ত্রী অন্যত্র বিয়ে হওয়ার কারণে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা উত্তলনে জটিলতায় পড়ে গত ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসে তিন ওয়ারিশদের সম্মতিক্রমে শামসুন্নাহার কে ভাতা উত্তলনের ক্ষমতা প্রদান করে ৩ শত টাকার ষ্ট্যাম্পে আদালতে নোটারী করে সমাজ সেবা অফিসে দাখিল করা হলে তা ভোলা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ফাইলটি আসলে প্রায় ১ মাস আগে ওই ফাইল অনুমোদন দিয়ে বোরহানউদ্দিন সমাজসেবা অফিসে পাঠানো হয়।

তারই আলোকে শামসুন নাহারের নামে বোরহানউদ্দিন সোনালী ব্যাংকে একটি একাউন্ট খোলা হয়। যাহার সঞ্চয়ী হিসা নাং ০৪০২৮০১০০৮৩৭৮। একাউন্টটি খুলে বোরহানউদ্দিন সমাজসেবা কার্যালয় একাউন্ট নাম্বার দেওয়া হলেও ঈদুল ফিতর সকল মুক্তিযোদ্ধার ভাতা ছাড়া হলেও কেন কি কারনে এই শহীদ শামসুদ্দিনের পরিবারের ভাতাটি ছাড়া হয়নি তা বোধগম্য নয়।

এবিষয়ে সামসুন নাহার আরো জানান, বোরহান উদ্দিন উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় কর্মকর্তা বাহাউদ্দিন একের পর এক অজুহাত দেখিয়ে তালবাহানা শুরু করেন।মোটা অংকের টাকা তার কাছে দাবি করেন। এই ঈদে অন্যান্য দিলেও শহীদ শামছুদ্দিনের সন্তানদের মুক্তিযোদ্ধার ভাতা থেকে তাদেরকে বঞ্চিত করা হয়েছে। এবিষয়ে বোরহানউদ্দিন উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা বাহাউদ্দিনর সাথে যোগাযোগ করাতে তার অফিসে গেলে অফিস চলাকালীন সময়ে সকাল সাড়ে ১১ টায় তার অফিস কক্ষে গিয়ে অফিস সহকারী রাসেলকে ছাড়া বাকী কোন কর্মকর্তা কর্মচারীকে অফিসে পাওয়া যায়নি।

তবে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে কর্মকর্তা বাহাউদ্দি জানান, এরকম যারা নতুন ভাতাভোগী আছেন তাদের অ্যাকাউন্টে এখনও ভাতা দেওয়া হয়নি।

এব্যাপারে ভোলা জেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম জানান, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তাদের গাফিলতির কারণে মুক্তিযোদ্ধা শহীদ পরিবার যদি সঠিক সময় ভাতা থেকে বঞ্চিত হন তাহলে তিনি লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যাবস্থা গ্রহণ করবেন।

এঘটনায় বোরহানউদ্দিন মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

-এডি/এইচএ

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ