বিয়ে আটকাতে গিয়ে প্রেমিকার বাড়ির লোকজনের মারধরে মৃত্যু

 আজকের ডাক | প্রকাশিত: রবিবার, জুলাই ৭, ২০১৯ ৬:২৮ পূর্বাহ্ণ  

প্রেমের মূল্য দিতে গিয়ে প্রাণ দিতে হলো প্রেমিককে। প্রেমিকার বাড়ির লোকজনের মারধরে মৃত্যু হয়েছে এক যুবকের। এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পাণ্ডুয়ায়।

প্রেমিকার অন্যত্র বিয়ে ঠিক হয়ে গিয়েছিল। বিয়ের দিনক্ষণও ঠিক হয়ে গিয়েছিল। বিয়ে আটকাতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন হুগলির পাণ্ডুয়ার মহাদেবপুরের যুবক মিরাজ মুহাম্মদ। প্রেমিকার বাড়ি গিয়ে বিয়ে না দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছিলেন মিরাজ। কিন্তু তার ফল হলো মর্মান্তিক।

মিরাজের অনুরোধ শুনেই ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে প্রেমিকার পরিবারের লোকজন। তারা বেধড়ক মারধর করে মিরাজকে। মার খেয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন মিরাজ। পরে হাসপাতালে নেয়া হলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসাকরা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় তুমুল উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

মিরাজের প্রতিবেশীদের অভিযোগ, ছেলে-মেয়ে দুজন দু’জনকে ভালোবাসতো। কিন্তু মেয়ের বাবা বিয়ে দিতে রাজি নন। ছেলে মেয়ের বাড়িতে দু-একবার বিয়ের কথা বললেও মেয়ের বাড়ির লোকজন তার অন্যত্র বিয়ে ঠিক করে। সেসব শুনে ফের মেয়ের বাড়িতে যায় মিরাজ। তার পরেই মেয়ের বাবা ও অন্যান্য লোকজন মিরাজকে ধরে মারধর করে। মার খেয়েই তার মৃত্যু হয়েছে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ